জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি ফলাফল ২০২০-২০২১ ।

অন্যান্য

 302 total views

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) অনার্স ভর্তি ফলাফল ২০২১ । অনার্স ভর্তির ১ম মেধা তালিকা রেজাল্ট জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট nu.edu.bd এ প্রকাশ করা হয়েছে । অনার্স ভর্তি রেজাল্ট সম্পর্কিত সকল প্রকার আপডেট পেতে নিচের তথ্য গুলো মনোযোগ সহকারে দেখুন।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি ফলাফল ২০২০-২০২১

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক (সম্মান) ১ম বর্ষ ভর্তির আবেদন ২৮ জুলাই ২০২১ বিকাল ৪ টা থেকে শুরু হয়ে ১৮ আগস্ট ২০২১ রাত ১২ টায় শেষ হয়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক (সম্মান) ১ম বর্ষ ভর্তির ফলাফল আমাদের এডমিশন ওয়্যার ওয়েবসাইট এবং admission.nu.edu.bd ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

 

আপনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষ ২০২০-২০২১ ভর্তির ফলাফল জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনলাইন পোর্টালে প্রবেশ করে জানতে পারবেন। এর জন্য আপনার প্রয়োজন হবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আপনার ফোনে পাঠানো নির্ধারিত রোল এবং নির্ধারিত পিন নম্বর।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) ভর্তির ফলাফল এসএমএসের মাধ্যমে জানা যাবে এবং আপনি আপনার আবেদনকৃত কলেজের ওয়েবসাইট থেকেও তা জানতে পারবেন।

স্নাতক (সম্মান) ভর্তির ফলাফল তিনটি মেধাতালিকায় প্রকাশিত হবে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এই ফলাফলে দুইটি মাইগ্রেশন ফলাফল এবং দুইটি রিলিজ স্লিপ ফলাফল অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মানভর্তির রেজাল্ট ২০২১

ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল আবেদনকারীদের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রকাশ করা হবে । যদি দুইজন প্রার্থীর জিপিএ একই হয় তবে বিষয়ভিত্তিক জিপিএ-কে প্রাধান্য দেওয়া হবে । প্রার্থীদের অধিকতর তথ্য প্রদানের জন্য নিচে আবেদনের যোগ্যতা সমূহ যুক্ত করা হল-

ভর্তির যোগ্যতাসমূহ

এসএসসি ২০১৭ এবং ২০১৮ সালের শিক্ষার্থীরা, এইচএসসি ২০১৯ এবং ২০২০ সালের শিক্ষার্থীরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) ভর্তির জন্য যোগ্য বলে বিবেচিত হবে।

মানবিক শাখাঃ মানবিক শাখার শিক্ষার্থীদের এসএসসিতে ন্যূনতম জিপিএ ২.৫ পেতে হবে এবং এইচএসসি তে চতুর্থ বিষয় সহ ন্যূনতম জিপিএ ২.৫ হবে।

বিজ্ঞান এবং ব্যবসায় শিক্ষা শাখাঃ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক (সম্মান) ১ম বর্ষ ভর্তির জন্য বিজ্ঞান এবং ব্যবসায় শিক্ষা শাখা থেকে ছাত্র-ছাত্রীদেরকে এসএসসিতে ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ এবং এইচএসসি তে চতুর্থ বিষয় সহ ন্যূনতম জিপিএ ২.৫ পেতে হবে।

অনার্স ভর্তির ফলাফল দেখার প্রক্রিয়া

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান, ব্যবসায় শিক্ষা এবং মানবিক শাখার স্নাতক ভর্তির ফলাফল প্রকাশিত হওয়ার জন্য প্রস্তুত। ছাত্রছাত্রীরা তাদের কাঙ্ক্ষিত ফলাফল জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট এবং অফলাইন এসএমএসের মাধ্যমে জানতে পারবে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ভর্তির ফলাফল জানার প্রক্রিয়া –

ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানার প্রক্রিয়া

  • জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ভর্তির ফলাফল এর ওয়েবসাইট admission.nu.edu.bd অথবা nu.ac.bd/admissions – তে প্রবেশ করুন
  • উপরে দিকে বাম পাশে অবস্থিত Applicant Login এ যান
  • আপনি একটি ড্রপডাউন লিস্ট পাবেন
  • ড্রপ-ডাউন লিস্ট এর প্রথম লিঙ্ক – Honours Login এ ক্লিক করুন
  • এখন আপনি Applicant’s Account Login (Honours) নামে একটি পেইজ দেখতে পাবেন
  • এই পেইজে দেওয়া বক্সে আপনি আপনার নির্ধারিত এডমিশন রোল এবং পিন নম্বর বসান
  • লগইন বাটনে ক্লিক করুন
  • আপনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ভর্তির পোর্টালে লগইন করেছেন
  • আপনি আপনার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ভর্তির ফলাফল ২০২১ এখানে দেখতে পারবেন
  • যদি আপনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ভর্তির জন্য যোগ্য বলে বিবেচিত হন তাহলে আপনি এখানে ‘অভিনন্দন’ সহ একটি বার্তা পাবেন

 

এসএমএসের মাধ্যমে ফলাফল জানার প্রক্রিয়া

  • আপনার ফোনের মেসেজ বক্স টি খুলুন
  • মেসেজ বক্সে নিম্নবর্ণিত ফরমেটে একটি মেসেজ টাইপ করুন –

nu<space>athn<space>roll no

  • এখন এই মেসেজটি 16222 নম্বরে পাঠিয়ে দিন
  • ফলাফল প্রকাশের কিছুক্ষণের মধ্যেই আপনি আপনার নির্ধারিত ফলাফল পেয়ে যাবেন

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাতালিকা ২০২১

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ভর্তির মেধাতালিকা কয়েকটি নির্দিষ্ট ধাপে প্রকাশিত হয়। সাধারণত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এই তিন ধরনের মেধা তালিকা প্রকাশিত হয় –

  • ১ম মেধা তালিকা রেজাল্ট

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) ভর্তির ফলাফল প্রকাশিত হওয়ার মাধ্যমেই প্রথম মেধা তালিকা প্রকাশিত হয়।

  • ২য় মেধা তালিকা রেজাল্ট

যেসব শিক্ষার্থীরা প্রথম মেধা তালিকায় স্থান না পায় তবে সিট খালি থাকা সাপেক্ষে তারা ২য় তালিকায় স্থান পাবে।

  • ৩য় মেধা তালিকা

যারা ২য় মেধা তালিকাতেও স্থান না পাবে তাদের জন্য পূণরায় তৃতীয় মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে। যখন দ্বিতীয় মেধাতালিকায় ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা পূরণ না হয় তখন তৃতীয় মেধা তালিকা প্রকাশের মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীদের সংখ্যা পূরণ করা হয়।

ছাত্র-ছাত্রীদের মাইগ্রেশন ফলাফল দ্বিতীয় এবং তৃতীয় মেধা তালিকা প্রকাশের সাথে সাথে প্রকাশিত হয়। মাইগ্রেশন ফলাফল সাধারণত রিলিজ স্লিপের ফলাফলের শেষে প্রকাশ করা হয়।

অপেক্ষমান তালিকা ফলাফল

তৃতীয় মেধা তালিকা প্রকাশিত হওয়ার পর যদি আসন খালি থাকে তবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির অপেক্ষমান তালিকা  প্রকাশ করা হবে।

রিলিজ স্লিপ সম্পর্কিত তথ্য

নিম্নবর্ণিত ছাত্রছাত্রীরা রিলিজ স্লিপের জন্য আবেদন করতে পারবে –

১‌। যে সকল ছাত্র-ছাত্রীরা মেধা তালিকায় স্থান পায়নি।

২। ছাত্রছাত্রীরা তাদের আবেদন ফরম বাতিল করেছে।

৩। যে সকল ছাত্র ছাত্রীরা মেধাতালিকায় স্থান পেল বরাদ্দকৃত বিষয়ে ভর্তি হবে না।

এই সকল আবেদনকারীরা বিষয় ভিত্তিক শূন্য আসন সাপেক্ষে পাঁচটি কলেজে আলাদাভাবে বিষয় পছন্দক্রম নির্ধারণ করে রিলিজ স্লিপের জন্য আবেদন করতে পারবে।

চূড়ান্ত আবেদনের গুরুত্বপূর্ণ ধাপ সমূহ

সংশ্লিষ্ট কলেজকে মেধাতালিকা, রিলিজ স্লিপ ও কোটায় স্থানপ্রাপ্ত আবেদনকারীদের স্ব স্ব বিষয়ে চূড়ান্ত ভর্তি নিশ্চায়ন এ লক্ষ্যে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে অনলাইনে এন্ট্রি সম্পন্ন করতে হবে। সংশ্লিষ্ট কলেজ কর্তৃক কোন আবেদনকারী চূড়ান্ত ভর্তি নিশ্চায়ন না করলে উক্ত আবেদনকারীর রেজিস্ট্রেশন কার্ড ইস্যু করা হবে না।

সংশ্লিষ্ট কলেজ শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন ফির জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্ধারিত অংশ (প্রতি শিক্ষার্থী থেকে ৪৮৫ টাকা হারে) যেকোন সোনালী ব্যাংক শাখায় জমা দেবে।

  • চূড়ান্ত আবেদন সম্পর্কে কিছু তথ্য এবং আবেদন ফি

আপনি যদি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে আপনার নির্ধারিত কলেজে চান্স পেয়ে থাকেন তাহলে চূড়ান্ত আবেদনের জন্য আপনাকে ওই নির্ধারিত কলেজে গিয়ে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে। চূড়ান্ত আবেদন সম্পন্ন করার জন্য ছাত্র-ছাত্রীদেরকে নিম্নবর্ণিত কাগজপত্র এবং ফি জমা দিতে হবে –

  • চূড়ান্ত আবেদনের জন্য কাগজপত্র

১। আবেদন ফরম

২। পাসপোর্ট সাইজের ছবি

৩। এসএসসি মার্কশিট এবং সার্টিফিকেট

৪। এইচএসসি মার্কশিট এবং সার্টিফিকেট

  • আবেদন ফি

ক) প্রাথমিক আবেদন ফি- ২৫০ টাকা

খ) রেজিস্ট্রেশন ফি

১। শিক্ষার্থী প্রতি রেজিস্ট্রেশন ফি – ৪৫০ টাকা

২। শিক্ষার্থীর প্রতিক্রিয়া ও সংস্কৃতি ফি – ২০ টাকা

৩। শিক্ষার্থী প্রতি বিএনসিসি ফি – ৫ টাকা

৪। শিক্ষার্থী প্রতি রোভার স্কাউট ফি – ১০ টাকা

মোটঃ ৪৮৫ টাকা

৫। শিক্ষার্থী প্রতি ভর্তি বাতিল ফি – ৭০০ টাকা

৬। শিক্ষার্থী প্রতি ভর্তি পুনঃবহাল ফি – ৭০০ টাকা

 

শেয়ার করুনShare on Facebook
Facebook
Pin on Pinterest
Pinterest
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print
Email this to someone
email

Leave a Reply

Your email address will not be published.